৩৭ বছর সিলেট প্রবাসীর কাতারে কৃষি বিপ্লব, ৩০০ শ্রমিকের কমসংস্থান খামাড়ে—

[DCAS_shortcode style="0" rating="0" postsperpage="5" columns="3"]
Published on Oct 4, 2018

Subscribe my channel ঃ https://www.youtube.com/channel/UC-l5…

কাতারে ধুসর মরুভূমি কৃষি প্রযুক্তির কল্যাণে এবং প্রবাসীদের শ্রমে হয়ে উঠেছে গাছে গাছে সবুজ আর ফুলে-ফলে বর্ণিল। যেখানে বাংলাদেশিদের অবদানও কম নয়। এমনই একজন কৃষি উদ্যোক্তা সিলেটের বদরুল ইসলাম কাতার প্রতিনিধি হারুনুর রশিদ মৃধার প্রতিবেদনে দেখুন বিস্তারিত….

পারস্য উপসাগরের মরুময় দেশ কাতার। দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ার ছোট্ট এই দেশটির দক্ষিণে সৌদি আরব এবং পশ্চিমে দ্বীপরাষ্ট্র বাহরাইন। এখানে প্রাকৃতিক কোনো জলাশয় নেই এবং প্রাণী ও উদ্ভিদের সংখ্যাও যৎসামান্য।

বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ। বাংলাদেশের ভূমির সব চেয়ে বেশি অংশ ব্যবহৃত হয় কৃষিতে। তাই বাংলাদেশের প্রতিটি গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর রয়েছে কৃষির প্রতি টান। এ সত্য বরাবরই প্রমাণিত হয় অন্যান্য দেশে প্রবাসী বাংলাদেশিদের কৃষি সাফল্যের মধ্য দিয়ে। এমনই একজন সিলেট কুলাউড়া উপজেলার কাতার প্রবাসী মোঃ বদরুল ইসলাম। তিনি ১৯ ৮২ সালে শ্রমিকের কাজ নিয়ে কাতার। প্রবাস জীবনের অনেক ঘাত প্রতিঘাতের পর তার আজকের এ অবস্থান। এই আধুনিক কৃষি খামারটি অত্যন্ত উন্নত প্রযুক্তি সম্পুর্ণ। আর এই উন্নত প্রযুক্তির পেছনে মানুষটি হলো মোঃ বদরুল ইসলাম। তিনি দীর্ঘ বিশ বৎসর কাতার সরকারের পানি এবং কৃষি গবেষণা কেন্দ্রে “কৃষিতে উন্নত প্রযুক্তি র ব্যবহার” গবেষণাতে যুক্ত ছিলেন। এই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে গড়ে তুলেছেন এই উন্নত প্রযুক্তির খামারটা।

এই কৃষি খামারটির মালিক বদরুল ইসলামের কাতারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান Maysaloon Engineering Co. এর স্থানীয় অংশীদার আবদুল্লাহ সালেম আল সুলাইতিন। বদরুল ইসলাম দীর্ঘ ৩৭ বৎসর থেকে কাতারে আছেন। কৃষি রিচার্চিং ডিপার্টমেন্টে চাকুরী জীবন শুরুর পর পিছে তাকাতে হয় নাই বদরুল ইসলাম কে।

বদরুল ইসলাম তার নিজস্ব বুদ্ধি, কৌশল ৩৭ বছর প্রবাস জীবনের, কৃষি রিচার্চিং এ ২০ বছের অভিজ্ঞতা কে কাজে লাগিয়ে দোহা সিটির কেন্দ্রস্থল থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে হোম সালাল আলী এলাকায় একটি তাবুতে ৭জন লোক দিয়ে শুরু করে ছিলেন এ খামার। আজ এখানে ২৪৭ বিগা ভূমিতে সৃষ্টি হয়েছে সবুজে ঘেরা কৃষি নগরী। এ যেন মরুর বুকে এক টুকরো বাংলাদেশ। এখানে অন্যান্য দেশের কর্মরত শ্রমিকের পাশাপাশি বাংলাদেশি প্রায় ৩০০ শ্রমিক কাজ করেন।

এ বিশাল গ্রিন হাউজে রয়েছে দেশি বিদেশি উন্নত জাতের বৃক্ষ। আলো তাপ, পানি নিয়ন্ত্রিত অবস্থায় চলছে এ গ্রিন হাউজ টি। উৎপাদন হচ্ছে ফল,ফুল, বৃক্ষরাজি সহ সব ধরনের সবজি। বদরুল ইসলামের এ সাফল্যের পিছনে রয়েছে কৃষির প্রতি আবদুল্লাহ সালেম আল সুলাইতিন এর বিশেষ আন্তরিকতা।

কাতার কে সৌন্ধয়্য বর্ধনে বৃক্ষরাজির প্রতি সর্বোচ্ছ গুরুত্ব দিচ্ছে কাতার সরকার। ২০২২ সালে বিশ্বকাপের পর্দা উঠবে কাতারে। তাই সবার দৃষ্টি এখন মধ্যপ্রাচ্যের ধনী রাষ্ট্র কাতারের দিকে। এ উপলক্ষে কাতারের রাস্তার দুই পাশ, অফিস আদালত, সুপার মার্কেট ও বিশেষ বিশেষ জায়গায় সবুজায়ন দিয়ে দৃষ্টিনন্দন করতে এ খামেরর উৎপাদিত নানা রকম ফুল ও গাছের চারা সরবরাহ করছে কাতার সরকার।

এ খামারে ফুলের মধ্যে রয়েছ পিটুনিয়া,
স্বকামী পুরুষ-প্রাণী,বিভিন্ন ধরনের ডেজি, পোর্টুলকা গোলাপী গোলাপ,
সূর্যমুখী ও গাঁদা ফুলসহ নানা রকম ফুল।
সবজির মধ্যে,শসা,টমেটো,লঙ্কা,বেগুন,চেরি টমেটোও ফরাসি মটরশুটি সহ নানা রকম সবজি।
বৃক্ষের মধ্যে রয়েছে আম, লেবু, নিম,পাম গাছ, বনসাই ও
বিভিন্ন ধরনের শোভাময় গাছপালা।

Thanks for Watching this video For More Video,

Share This Video – https://youtu.be/9sNY6et2qgc

?? Follow Us Socially ??

? Google+- https://plus.google.com/1181715605051…

Your constructive comments will inspire us
Please Like & Subscribe my channel

Don’t forget to share and comment..Thank you

    আমি পড়ালেখা বা পেশায় একজন কৃষিবিদ তবে জানার বা পারার দিক থেকে তেমন কিছুই ভাল পারিনা। কৃষির সাথে থাকতে থাকতে কৃষিকে ভালবেসে ফেলেছি। এর সাথে আইটি বিষয়ে আগ্রহ থাকায় বাংলার কৃষিকে ইন্টারনেট জগতে আরো শক্তিশালী করতে চাই।সকলের জন্য অনলাইনে ব্যবসার সুযোগ করে দিতে চাই। তাই শখের কৃষি সাইট নিয়ে কাজ করছি। আপনিও আমার সাথে থাকুন। সরকারি দায়িত্বের পাশাপাশি ব্যক্তিগত আগ্রহের তাগিদে কৃষিতে আগামী প্রজন্মের উদীয়মান কৃষকদের একত্রিত করার একটি প্রচেষ্টার নাম আমার এই শখের কৃষি। এখানে ডিজিটাল কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার করে একজন কৃষক খুব সহজে আরেকজন প্রতিবেশী কৃষক কে একটি ক্লিকেই খুঁজে পাবেন। খুঁজে পাওয়ার সাথে সাথে তার সাথে যোগাযোগ, বন্ধুত্ব, তথ্য আদান প্রদান সহ তার পেশাগত সেবার প্রচার ও প্রসার করতে পারবেন। এখানে ব্যবহার করা হয়েছে জিও লোকেশন নির্ভর এমন একটি প্রযুক্তি যার মাধ্যমে একজন সাধারণ মানুষ জানতে পারবেন তার সবচেয়ে কাছাকাছি কোন লোকটি কৃষি কাজ নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। সেই সাথে বিভিন্ন কৃষি পণ্য খুঁজে পাবেন যা তার অবস্থান থেকে সবথেকে কাছের। এছাড়াও রয়েছে বিশাল এক তথ্য ভান্ডার যার মাধ্যমে সাধারণ মানুষ কৃষি কাজে আগ্রহী হয়ে ওঠার পাশাপাশি কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন সমস্যার সমাধান নিজেই করতে পারবেন। শখের কৃষির এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে একজন শিক্ষিত যুবক খুব সহজে অনলাইন কৃষি ব্যবসায় তার উজ্জ্বল ক্যারিয়ার গড়তে পারেন। উন্নত বিশ্বে এই প্রযুক্তি খুব নতুন হলেও সফল ভাবে কাজ করছে যা আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কৃষকদের জন্য একটি বিশাল সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দেয়। এখানে প্রযুক্তিকে এতই সহজ ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে যে একজন স্বল্প শিক্ষিত কৃষক তার কৃষি ব্যবসা কে সারাদেশে অথবা সারা পৃথিবীর মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে পারবেন। এর জন্য একদিনের একটি ছোট্ট প্রশিক্ষণই যথেষ্ট। প্রশিক্ষণটি ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে গ্রহণ করা সম্ভব। আমরা খুব শীঘ্রই অনলাইন ভিত্তিক এই প্রশিক্ষণটি সকলের জন্য বিনামূল্যে পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা করছি। উদাহরণস্বরূপ বলা যায় একজন বড় প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী যেমনি তার ব্যবসাকে অনলাইনের মাধ্যমে সারাদেশের মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে পারেন ঠিক তেমনি একজন শখের কৃষক ঘরে বসে তার উৎপাদিত নিরাপদ স্বাস্থ্যসম্মত কৃষিপণ্যটি সারাদেশের মানুষের কাছে উপস্থাপনের পাশাপাশি বিক্রয় করে আর্থিকভাবে লাভবান হতে পারেন। এক্ষেত্রে শখের কৃষির কৃষি প্রতিবেশী প্রযুক্তির মাধ্যমে আরেক প্রতিবেশীর কাছে তার এই সেবাটি মুহূর্তেই পৌঁছে দিতে পারবেন। https://krishimela.com.bd/

    We will be happy to hear your thoughts

        Leave a reply

        Change
        KrishiMela
        Logo
        Register New Account
        Reset Password